বাংলাদেশ, বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

শিরোনাম

“বিগত দিনে সৌন্দর্য্যবর্ধনে গোষ্ঠী বিশেষের লাভ হলেও চসিক আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে”- সুজন


প্রকাশের সময় :১০ নভেম্বর, ২০২০ ১:৫৭ : অপরাহ্ণ

সিক্সটিন বাংলা ডেস্ক : চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক আলহাজ্ব মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন বলেছেন,বিগত সময়ে সৌন্দর্য্যবর্ধনের কার্যক্রম- বাগান দিয়ে শুরু হয়ে দোকান ভাড়া দিয়ে শেষ হয়েছে। এতে গোষ্ঠী বিশেষের লাভ হলেও কর্পোরেশন আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আমি চাই নগরে সবুজের ছোঁয়া। প্রশাসক আসন্ন শীত মৌসুমকে সামনে রেখে নগরীর গুরুত্বপূর্ণ স্পটগুলো নানা জাতের ফুলগাছ রোপন করে বর্ণিল ফুলে সজ্জিত করতে নগরীর নার্সারী মালিকদের এগিয়ে আসতে বলেন।

আজ (১০ নভেম্বর) সকালে আন্দরকিল্লাস্থ পুরনো নগর ভবনের কে বি আবদুচ ছত্তার মিলনায়তনে নগরীর নার্সারী মালিক নেতৃবৃন্দের সাথে মতবিনিময়ের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চসিক প্রশাসক একথা বলেন।

নার্সারি মালিকদের সাথে মতবিনিময় করছেন চসিক প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক খোরশেদ আলম সুজন আরো বলেন, চট্টগ্রাম হচ্ছে প্রকৃতির নন্দিনী। অপরূপ সৌন্দর্যের বন্দর নগর চট্টগ্রামের সৌন্দর্য্য আজ নগরায়নের কারণে হারিয়ে যেতে বসেছে। আমি চাই আমাদের এই প্রিয় শহর আবারো সবুজের সমারোহে পত্র পল্লবে নানা রঙ ও বর্ণের ফুলে পল্লবিত হউক। বর্তমানে নগরীতে সৌন্দর্য্যবর্ধনের নামে যা হয়েছে তাতে চোখ ভরলেও মন ভরে না। প্রকৃতির ছোঁয়ায় আমাদের শহরের বৃদ্ধি পাক এটা আমার আকাক্সক্ষা। আশাকরি নগরের নার্সারী মালিকরা আমার আহ্বানে সাড়া দিবেন। নার্সারী মালিকরা কর্পোরেশনের জায়গায় ফুলের বাগান করার জন্য প্রশাসকের কাছে অনুরোধ জানালে, তিনি তাদের প্রস্তাব নিয়ে আবারো বৈঠকে বসবেন বলে আশ্বস্ত করেন।

!মতবিনিময়ে অনুষ্ঠানে প্রশাসকের একান্ত সচিব মুহাম্মদ আবুল হাশেম, প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ এ কে এম রেজাউল করিম, স্থপতি আবদুল্লাহ ওমর, মো. নুরুদ্দীন, বস্তি উন্নয়ন ও বনায়ন কর্মকর্তা মঈনুল হোসেন আলী সহ নগরীর ২০টি নার্সারী মালিক উপস্থিত ছিলেন।

ট্যাগ :