বাংলাদেশ, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

শিরোনাম

যুবসমাজকে মাদকমুক্ত রাখতে সংস্কৃতিচর্চার বিকল্প নেই: চসিক মেয়র


প্রকাশের সময় :২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ৮:০০ : অপরাহ্ণ

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী বলেছেন, শিল্পে, সাহিত্যে, সংস্কৃতিতে চট্টগ্রাম একসময় অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলো। ঔপনিবেশিক শাসন আমলে আমাদের কবিয়ালরা গান গেয়ে এই উপমহাদেশের জনগণকে স্বাধীনতার মন্ত্রে উদ্বুদ্ধ করেছিলো। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছয় দফাকে চারণ কবিরা গানের ছন্দে ছন্দে মানুষের মনে ডুকিয়ে দিয়েছিলো, জনপ্রিয় করে তুলেছিলো।

তিনি আরো বলেন, আমিও চাই আমাদের এই চট্টগ্রাম শিল্পে, সাহিত্যে, সংস্কৃতিতে তার হারানো ঐতিহ্য ফিরে পাক। চট্টগ্রামের আনাচে কানাচে আজকের এই আয়োজন থেকেই সুচনা হোক শুদ্ধ সাংস্কৃতিক চর্চার। মাদকের ছোবল থেকে যুবসমাজকে মুক্ত রাখতে সংস্কৃতি চর্চার কোন বিকল্প নেই।

২৬ ফেব্রুয়ারী শুক্রবার সন্ধ্যায় ২১ নং জামালখান ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন এর আয়োজনে “পুরনো সুরে নতুন প্রজন্ম” গানের অনুষ্ঠান নতুনভাবে উদ্বোধন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন সিটি মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম. রেজাউল করিম চৌধুরী।

এরআগে অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছালে মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন ও তার স্ত্রী।

হায়রে মানুষ রঙ্গিন ফানুস দম ফুরালেই টুস,কালজয়ী এই গানটি শিল্পীর কণ্ঠে শুনে বক্তব্যে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে মেয়র বলেন, আহ কি সুন্দর গান আর কি সুন্দর পরিবেশনা, আমি তো গানের মধ্যে ডুকে গিয়েছিলাম। এই গানের ভিতরে ডুকে যদি আমরা মর্মার্থ উপলদ্ধি করতে পারি তাহলে মানুষে মানুষে হিংসা আর থাকবে না। মানুষে মানুষে হিংসা না থাকলে সকলের সম্প্রীতির বন্ধন দৃঢ় হবে। আর এই দৃঢ় সম্প্রীতির বন্ধনের কারণেই গড়ে উঠবে একটি ভ্রাতৃত্বের সুন্দর শহর।

অনুষ্ঠানের আয়োজক ২১ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমনের প্রশংসা করে মেয়র বলেন, এতো সুন্দর মনোমুগ্ধকর আয়োজন যে করেছে তাকে ধন্যবাদ না জানালে চিত্তের কৃপণতা প্রকাশ পাবে। শৈল্পিক, সাংস্কৃতিকমনা এবং অত্যন্ত সৃষ্টিশীল একজন মানুষ কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, যোগ করেন মেয়র রেজাউল।

শিল্পীদের প্রশংসা করে মেয়র বলেন, গান শুনে আমার খুব ভালো লেগেছে। হৃদয় আমার উদ্বেলিত হয়েছে, চিত্ত আমার প্রসারিত হয়েছে। এতো সুন্দর গান পরিবেশনের মধ্যে দিয়ে যারা দর্শকশ্রোতাদের বিমোহিত করে রেখেছেন তারা সকলেই প্রশংসার দাবীদার। আর যারা মন্ত্রমুগ্ধের মতো গান শুনছেন তারাও কোমল হৃদয়ের অধিকারী।

সুন্দর পরিবেশে সুন্দর আয়োজনের জন্য আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে নগরীর প্রত্যেকটি ওয়ার্ডকে জামালখানের মতো সুন্দর ও পরিচ্ছন্ন রাখতে যত্রতত্র ময়লা আবর্জনা না ফেলতে নগরবাসীর প্রতি আহবান জানান সিটি মেয়র।

অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন শিল্পী পাপড়ী ভট্টাচার্য, হিমেল মন্ডল এবং তন্বী সাহা।

ট্যাগ :