বাংলাদেশ, শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি : সাধারণ সম্পাদকের বাবা আওয়ামী লীগ, ভাই শিবির !


প্রকাশের সময় :১৭ নভেম্বর, ২০২০ ১০:৩৫ : অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : দীর্ঘ ২২ বছর পর লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি অনুমোদন হয়েছে। কমিটিতে এ কে এম আসিফুর রহমান চৌধুরীকে সভাপতি, এরশাদুর রহমান রিয়াদকে সাধারণ সম্পাদক করে লোহাগাড়া উপজেলা কমিটির অনুমোদন করেছে চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগ৷

১৭ নভেম্বর (মঙ্গলবার) রাতে চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম বোরহান উদ্দিন এবং সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু তাহের সাক্ষরিত লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের আংশিক কমিটিতে ১৬ জন সহ-সভাপতি, ৫ জন করে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংগঠনিক সম্পাদক সহ মোট ৬৪ জনের নাম অনুমোদন দেয়া হয়েছে৷

লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি

জামায়াত-শিবির অধ্যুষিত লোহাগাড়া উপজেলায় দীর্ঘ ২২ বছর পর ছাত্রলীগের কমিটির সাধারণ সম্পাদক এরশাদুর রহমান রিয়াদকে নিয়ে বেশ কিছুদিন যাবৎ নেতিবাচক প্রচারনা চলছিলো৷ সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে রিয়াদের আপন বড় ভাই দীর্ঘদিন ছাত্রশিবিরের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছে বলে তথ্য তুলে ধরা হয়৷ সেই সূত্রধরে সিক্সটিন বাংলার অনুসন্ধানেও এর সত্যতা মিলেছে৷ জানা গেছে রিয়াদের বড় ভাই মুহাম্মদ ফরহাদ চট্টগ্রাম সরকারি হাজ্বী মুহাম্মদ মহসিন কলেজ এর ছাত্র শিবিরের অন্যতম শীর্ষ নেতা।

এই বিষয়ে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস এম বোরহান সিক্সটিন বাংলাকে বলেন, “রিয়াদের বাবা জয়নুল আবেদীন লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা একই সাথে তিনি চুনতি ইউনিয়ন পরিষদের একাধিকবারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান। তার এক বড় ভাই চট্টগ্রাম নগরীর একটি কলেজে শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলো বলে অভিযোগ তোলা হয়েছে৷ কিন্তু রিয়াদের বাবা যে লোহাগাড়া আওয়ামী লীগের দূর্সময়ের একনিষ্ঠ নেতা ছিলেন সেটা কিন্তু কেউ বলছে না৷” বোরহান আরো বলেন, ১৯৯৮ সালের পর লোহাগাড়া উপজেলায় ছাত্রলীগের অনেক আহবায়ক কমিটি গঠিত হয়েছিলো৷ কিন্তু গত ২২ বছরে কেউই উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করতে পারেনি৷ আমরা উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ থেকে শুরু করে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতাদের সাথে পরামর্শ করেই কমিটি গঠন করেছি।

সাধারণ সম্পাদক রিয়াদের বাবা (টিক চিহ্ন) আওয়ামী লীগ নেতা ও ইপি চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদিন। ডানে তার বড় ভাই শিবির নেতা ফরহাদের ফেসবুক স্টাটাস।

এদিকে একাধিক আওয়ামী লীগ ও ছাত্রলীগ নেতা স্বিকার করেছেন লোহাগাড়া প্রচন্ড জামায়াত-শিবির অধ্যুষিত এলাকা৷ আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন রাষ্ট্র ক্ষমতার বাহিরে থাকার সুযোগে এই জনপদে সর্বত্র জামায়াত-শিবির শক্ত অবস্থানে রয়েছে৷ ফলে জয়নুল আবেদিন চেয়াম্যান আওয়ামী লীগ নেতা হলেও শহরে (চট্টগ্রাম) পড়া লেখা করতে গিয়ে তার এক ছেলে শিবিরের রাজনীতিতে জড়িয়ে পড়ে৷ তবে রিয়াদ দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত বলে জানিয়েছেন তারা৷

উল্লেখ্য ইতিপূর্বে, ২০১৯ সালের মার্চ মাসে চট্টগ্রাম দক্ষিন জেলার সাতকানিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি নিয়েও বিরোধ দেখা দেয়ায় পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের ১৭দিন পর কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বা সেটা বাতিল করে দিয়েছিলো। তবে এখন পর্যন্ত লোহাগাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি নিয়ে বড় আকারের বিদ্রোহের দেখা মেলেনি৷ তবে আজ (১৮ নভেম্বর) বোঝা যাবে দীর্ঘ ২২ বছর পর গঠিত কমিটি কতোটা গ্রহণ যোগ্য হয়েছে৷

ট্যাগ :