বাংলাদেশ, বুধবার, ৩ মার্চ ২০২১

নাম বিভ্রাট : যুবলীগের কমিটিতে এক পদের দুই দাবিদার


প্রকাশের সময় :১৬ নভেম্বর, ২০২০ ৬:৪৩ : পূর্বাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের ২০১ সদস্যের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির একটি পদ নিয়ে বিভ্রাট দেখা দিয়েছে৷ ঘোষিত কমিটির উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক পদের দাবিদার দুইজন৷ পটিয়া আওয়ামী রাজনীতির সাথে জড়িত আবদুর রহমান ও এম এ রহিম দু’জনকেই নিজ নিজ অনুসারিরা ফুলের শুভেচ্ছায় ভাসাচ্ছেন৷

যদিও পটিয়ার আরেক সন্তান সদ্য ঘোষিত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম বদি সিক্সটিন বাংলাকে জানিয়েছেন, তালিকায় নামের পার্শ্বে যে মোবাইল নাম্বার থাকে তিনিই পদের আসল দাবিদার৷ সে হিসেবে এম এ রহিম নন আব্দুর রহমানই পদ পেয়েছেন৷

গত শনিবার কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের স্বাক্ষরিত তালিকায় উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক হিসেবে নাম উল্লেখ আছে মোঃ আব্দুর রহিম। সেই নামের পার্শ্বে জেলার নাম চট্টগ্রাম এবং মোবাইল নাম্বার 01741513955 উল্লেখ আছে৷ আর এটাতেই লেগে গেছে বিভ্রাট। এই মোবাইল নাম্বারটি যার তার নাম মোঃ আব্দুর রহিম’র নয় আবদুর রহমান৷ ফলে কমিটি ঘোষনার পর থেকে রহমান ও রহিম উভয়ই নিজেকে উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক পদের দাবীদার হিসেবে পরিচয় দিচ্ছেন। তবে পদ প্রাপ্তিতে তুলনা মূলক বেশী প্রচারনা দেখা গেছে এম এ রহিমের।

এই বিষয়ে জানতে সিক্সটিন বাংলা প্রতিবেদক এম এ রহিমের (019 নাম্বার) সাথে যোগাযোগ করে কেন্দ্রের দেয়া তালিকায় উল্লেখিত ০১৭ নাম্বারটি তার কিনা জানতে চাইলে তিনি স্বিকার করেন তালিকায় দেয়া নাম্বারটি তার নয়৷ তবে তিনি দাবি করেন নাম্বার দিয়ে নয় নাম দিয়েই পরিচয় প্রমান হয়৷ তিনি বলেন, “আমার পুরো নাম মোঃ আব্দুর রহিম তবে আমি এম এ রহিম হিসেবেই পরিচত। বিষয়টি কেন্দ্র থেকে যতক্ষন পর্যন্ত চূড়ান্ত ভাবে না জানায় ততক্ষন তিনিই পদের দাবীদার।” এদিকে এম এ রহিম তার সামাজিক যোগাযোগের আইডিতে ১৪ নভেম্বর রাত ১০টা ৪৯ মিনিটে পোস্ট করা একটি স্টাটাসে লিখেছেন, “মাঝে মধ্যে নিজের চোখে দেখা অনেক কিছু ও ভুলে হতে পারে সুতরাং…”।

এই তালিকার নাম নিয়েই বিভ্রান্তি

যুবলীগের ঘোষিত কমিটির তালিকায় উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদকের নামের পার্শ্বে থাকা মোবাইল নাম্বারে যোগাযোগ করা নাম্বারের মালিক আবদুর রহমান সিক্সটিন বাংলাকে বলেন, কেন্দ্র থেকে তাকেই উপ ক্রীড়া সম্পাদক করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, আজ কেন্দ্রীয় নেতারা বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ফুল দেয়া সহ বিভিন্ন কাজে ব্যস্ত থাকায় তালিকায় নাম বিভ্রাটটা তাৎক্ষনাত দূর করা হয়নি তবে আজ কালের মধ্যে মোঃ আব্দুর রহিম নামটি সংশোধন করে আমার নাম আবদূর রহমান অন্তর্ভূক্ত করা হবে৷

এই বিষয়ে জানতে পটিয়ার আরেক সন্তান, সদ্য ঘোষিত কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলমের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সিক্সটিন বাংলাকে বলেন, কেন্দ্র থেকে নামের তালিকার পাশে সংশ্লিষ্ট পদধারীর যোগাযোগের নাম্বার যুক্ত করে দেয়া হয়েছে৷ এটা সংগঠনের চেয়ারম্যান থেকে সেক্রেটারি সবার নামের পার্শ্বেই দেয়া আছে৷ সুতরাং সেই নাম্বারটিতে আপনারা যোগাযোগ করলেই সহজে কে পদ পেয়েছে তা চিহ্নিত করতে পারবেন। তাহলে কি নান্বারের হিসেবে আবদুর রহমানই উপ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক কিনা জানতে চাইলে দীর্ঘদিন যুবলীগের কেন্দ্রীয় রাজনীতিতে নেতৃত্ব দেয়া বদিউল আলম বলেন, কমিটির তালিকায় মোবাইল নাম্বারটি দেয়া হয় সহজে আইডেনটিফাই এবং যোগাযোগ করার জন্য৷ সেই হিসেবে তালিকায় উল্লেখিত নাম্বারটি যেহেতু আবদুর রহমানের সেক্ষেত্রে কেন্দ্র থেকে তাকেই নির্বাচিত করা হয়েছে। দ্রুত এই বিভ্রাটের অবসান হবে বলেও জানান তিনি৷

ট্যাগ :